1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nahiannews24@gmail.com : স্টাফ রিপোর্টার : স্টাফ রিপোর্টার
  3. akashkishoregonj89@gmail.com : এডমিন : এডমিন এডমিন
  4. nasimriyad24@gmail.com : নির্বাহী সাম্পাদক : নির্বাহী সাম্পাদক
  5. habibadnansohel758@gmail.com : সোহেল রানা : সোহেল রানা
  6. jannatwltelecom2016@gmail.com : ADMIN : ADMIN
  7. kabiralmahmud77@gmail.com : কবির আল মাহমুদ, ইউরোপ ব্যুরো প্রধান : কবির আল মাহমুদ, ইউরোপ ব্যুরো প্রধান
  8. Mamunshohag7300@gmail.com : Sub Editor : Sub Editor
  9. noornur710@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : নিউজ ডেস্ক
  10. rshahinur602@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
  11. salimrezataj68@gmail.com : Selim Reza : Selim Reza
  12. shamimsikder488@gmail.com : Shamim Sikder : Shamim Sikder
  13. showdip4@gmail.com : মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ : মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ
  14. shujanthakurgaon@gmail.com : স্টাফ রিপোর্টার : স্টাফ রিপোর্টার
  15. sobujsarkerbd10@gmail.com : Sobuj Sarkar Staff Reporter : Sobuj Sarkar Staff Reporter
শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতির জন্মদিন উদযাপনে বনানী থানা ছাত্রলীগ র‍্যাবের অভিযানে ৯টি পিস্তল ৪৯ রাউন্ড গুলি ১৯টি ম্যাগজিনসহ ইউপি সদস্য গ্রেফতার মহানবী (সা:)কে অবমাননার প্রতিবাদে রামগঞ্জে কওমি মাদ্রাসা ঐক্য পরিষদের বিক্ষোভ মুসলিম উম্মাহ’র হাক-ডাকে প্রকম্পিত বেনাপোল বন্দর আসছে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী লুপর্ণা মূৎসূর্দ্দী লোপার নতুন মিউজিক ভিডিও কবিতাঃ সংগ্রামী জবিয়ান লিখেছেনঃ ফারুক মিয়া ভাঙ্গায় র‌্যাবের অভিযানে প্রাইভেট ক্লিনিক সিলগালাঃপরিচালকসহ ৩ জনকে সাজা লোহাগাড়ায় এস আলম বাস সার্ভিসের উদ্বোধন নড়াইলে শিক্ষক (অবঃ) অরুণ রায়কে গলা কেটে হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত রাজধানীতে ঢাকাস্থ বেনাপোল সমিতির তৃতীয় প্রতিষ্টা বার্ষিকী পালিত

“টানা ৩ সাপ্তাহ লকডাউনে স্পেনে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি”

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ৯৩ Time View

– আবিদ আহমদ চৌধুরী
সম্ভবত টানা লকডাউনের ফল পেতে শুরু করেছে স্পেন। ৩০’শে মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল গড়ে প্রতিদিন প্রায় ৮ হাজার ছুঁইছুঁই, সেখানে বিগত ৪ দিনে গড় আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজারে নেমে এসেছে। তুলনামূলক কমছে মৃতের সংখ্যাও। ১৪ মার্চ থেকে লকডাউনে থাকা দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুবরণের ঘটনা ঘটে ৩ মার্চ, কিন্তু মাত্র এক মাস অতিবাহিত হতেই গত ৭ এপ্রিল পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ১৪৭৯২ জনে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। তাছাড়া মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৪৮২২০ জন, এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন সর্বমোট ৪৮০২১ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্তের মধ্যে মৃত্যুর হার ৯.৯৮ শতাংশ।

এদিকে করোনাভাইরাসের প্রভাবে ধশ নেমেছে ইউরোপের ৪র্থ সমৃদ্ধশালি দেশটির অর্থনীতিতে। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ‘এল পাইছ’ এক পরিসংখ্যানে উল্লেখ করেছে দেশটিতে গত এক মাসে জাতীয় আয় শতকরা ৬০ ভাগের নিচে নেমে এসেছে। অর্থনীতিবিদরা ধারণা করছেন বন্দীদশার প্রথম চার সাপ্তাহে দেশটি জাতীয় অর্থনীতিতে লোকশান দেখছে প্রায় ৪৯ বিলিয়ন ইউরো। দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয় জানিয়েছে শুধু মার্চ মাসে দেশটিতে ৩ লাখ ২ হাজার মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। বর্তমানে দেশটতে সর্বমোট বেকারত্বের সংখ্যা প্রায় ৩৫ লাখ, যা দেশটির মোট জনসংখ্যার ১৩.৭৮ শতাংশ। লকডাউন শেষ হবার পর এই সংখ্যা আশংকাজনক ভাবে বাড়বে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ধারণা করা হচ্ছে দেশটি এযাবৎ কালের সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক মন্দার দিকে এগুচ্ছে, সর্বশেষ ২০০৮ পুরো ইউরোপ জুড়ে যখন অর্থনৈতিক মন্দা দেখা দিয়েছিল সেসময় ব্যাপক হারে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল পর্যটন শিল্পের জন্য প্রসিদ্ধ দেশটি।

তাছাড়া টানা গৃহবন্দী থেকে মানুষিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে দেশটির জনসাধারণ। বিশেষ করে শিশু-কিশোরদের উপর এর প্রভাব পড়ছে ব্যাপক। এজন্য দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সালবাদর ইলা এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, “জরুরী অবস্থা শিথিল হওয়ার পরে প্রথম পদক্ষেপ গুলোর একটি হতে পারে মানুষজনকে বাইরে বের হয়ে একটু হাটাহাটি করার অনুমতি দেওয়া। কিন্তু অবশ্যই তা কেবল শিশুদের নিয়ে কিংবা একা একা নির্দিষ্ট সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং কঠোর নিয়ম-শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে।”

টানা লকডাউনে মারাত্মক প্রভাব পড়ছে দেশটি শিক্ষা কার্যক্রমে। বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিশেষকরে বিশ্ববিদ্যালয় গুলো তাদের বাৎসরিক একাডেমিক সেমিস্টার স্থগিত করেছে। স্প্যানিশ মহামারি সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞ সোসাইটির প্রেসিডেন্ট পেরে গদয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন “আমি মনে করি এই শিক্ষাবর্ষে শিশুদের স্কুলে ফিরে আসা কঠিন হবে। কারণ যদিও এই রোগটি সাধারণভাবে শিশুদের প্রভাবিত করে না, কিন্তু ভাইরাস যদি কোন স্কুলে বা কিন্ডারগার্টেনে প্রবেশ করে তবে তা সেখানকার সবাইকে সংক্রামিত করবে। এবং সবাই তাদের পরিবারে নিয়ে গিয়ে ব্যাপক হারে তা ছড়িয়ে দেবে আরেকবার।”

প্রায় ৩০ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশির বসবাস স্পেনে। যাদের মধ্যে সিংহভাগ থাকেন রাজধানী মাদ্রিদ এবং পর্যটন শিল্পে সমৃদ্ধ কাতালুনিয়ায়। আর করোনাভাইরাসের কারণে দেশটির সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত প্রদেশ হচ্ছে এদুটি। চরম আতংকের মধ্যে দিন পার করছেন এখানকার প্রবাসী বাংলাদেশিরা, কর্মহীন হয়ে পড়েছেন তাদের অধিকাংশ। বিশেষত অবৈধভাবে বসবাস করা প্রবাসীরা আছেন চরম বিপাকে। তাদের সহায়তার জন্য এগিয়ে এসেছে বিভিন্ন স্থানীয় প্রবাসি বাংলাদেশি সংগঠন গুলো। যাদের মধ্যে ‘ভালিয়ান্তে বাংলা’ এবং ‘বাংলাদেশ এসোসিয়েশন’ কাজ করছে রাজধানী মাদ্রিদে, এবং ‘হেল্পিং হেন্ডস’ নামে সদ্য প্রতিষ্ঠিত সংগঠনটি কাজ করছে বার্সেলোনায়। এছাড়া বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ১০ হাজার ইউরো বন্ঠনের উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page