1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nahiannews24@gmail.com : স্টাফ রিপোর্টার : স্টাফ রিপোর্টার
  3. akashkishoregonj89@gmail.com : এডমিন : এডমিন এডমিন
  4. nasimriyad24@gmail.com : নির্বাহী সাম্পাদক : নির্বাহী সাম্পাদক
  5. habibadnansohel758@gmail.com : সোহেল রানা : সোহেল রানা
  6. jannatwltelecom2016@gmail.com : ADMIN : ADMIN
  7. kabiralmahmud77@gmail.com : কবির আল মাহমুদ, ইউরোপ ব্যুরো প্রধান : কবির আল মাহমুদ, ইউরোপ ব্যুরো প্রধান
  8. Mamunshohag7300@gmail.com : Sub Editor : Sub Editor
  9. noornur710@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : নিউজ ডেস্ক
  10. rshahinur602@gmail.com : সম্পাদক : সম্পাদক
  11. salimrezataj68@gmail.com : Selim Reza : Selim Reza
  12. shamimsikder488@gmail.com : Shamim Sikder : Shamim Sikder
  13. showdip4@gmail.com : মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ : মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ
  14. shujanthakurgaon@gmail.com : স্টাফ রিপোর্টার : স্টাফ রিপোর্টার
  15. sobujsarkerbd10@gmail.com : Sobuj Sarkar Staff Reporter : Sobuj Sarkar Staff Reporter
শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০১:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কবি শামসুর রাহমানের ৯১তম জন্ম বার্ষিকী আজ দূর্গাপূজায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইঞ্জি: ইপোনুর রহমান মুন্না দূর্গাপূজায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রসায়নবিদ ড. জাফর ইকবাল নওগাঁর সাপাহারে ভুটভুটি চুরি আটক ৪ বেলকুচিতে যমুনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরার অপরাধে ১৮ জেলের কারাদন্ড বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে নিয়োগের দাবীতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন দূর্গাপূজায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন হাসান ইকবাল হামলা-মামলা দিয়ে আন্দোলন দমানো যাবেনা : প্রধানপুত্র রাশেদ নড়াইলে চোরাইকৃত ১৬টি ইজিভ্যান উদ্ধার, অভিযুক্ত আটক কোম্পানীগঞ্জে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে অনলাইনে অপপ্রচার

প্রিয় নবীর উম্মত হিসাবে ক্ষমা করুন

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০
  • ৬৭ Time View

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়ঃ

আমরা তো গুনাহগার, তুমি তো গাফফার
তুমি রাহমানির রাহিম, অন্তর জামি
হে রহিম রহমান ক্ষমা করে দাও আল্লাহ
তোমার প্রিয় হাবিব, তোমার প্রিয় বন্ধু
বিশ্ব নবী হযরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর উম্মত হিসাবে আমাদের ক্ষমা করে দাও।

হে আল্লাহ আজ বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচার জন্য তোমার সৃষ্টি মানুষ গুলি নিরুপায় হয়ে যে যার ঘরে বন্ধি। তুমি যে জগতের মালিক কিছু দেশ ও জাতি তা ভুলে গেছে, তাইতো তারা যখন তখন অসহায় দেশ বা জাতির উপরে জুলুম, অত্যাচার, নির্যাতন চালিয়েছে, আজ সেই ক্ষমতাধর দেশ এবং সে সব দেশের রাস্ট্রপ্রধান গন ব্যার্থ হয়ে ভিখারির মতই তোমার সুবিশাল আকাশ এর দিকে তাকিয়ে ইংগিত দিয়ে বলছে – আই নো নাথিং, বাট আল্লাহ ইজ নো এভরিথিং।

হে আল্লাহ বিশ্ব মুসলিমদের পবিত্র স্থান তোমার কাবা শরিফের সামনে বিশ্ব আলেমদের চোখের পানি কবুল করুন, মসজিদে নববীর ইমামের চোখের পানি, দোয়া কবুল করে সবাইকে করোনা ভাইরাস থেকে হেফাজত করুন, রহমত দান করুন। আমাদের হেদায়েত দান করুন।

আজ কারো আক্রমনে বিপর্যস্ত নই কেউ, বিশ্ব জুড়ে করোনার আতংকে আতংকিত সবাই।

করোনায় পরিশুদ্ধ হোক মানুষের জীবন, জাগ্রত হোক বিপন্ন মানবতা, আত্ম অহামিকা দূর করে আল্লাহর দেয়া ক্ষনিকের জীবনকে ভালো কাজে ব্যায় করি, রাজনিতি, সমাজনিতি, সাংস্কৃতি যে যাই করি বা করেননা কেন তা যেন মানবকূলের উপকারে আসে সে চিন্তা করেই করতে হবে।

সেই বোধের বয়স থেকেই আমি এটা বিশ্বাস করি যে, এই পৃথিবীতে বড় বড় যে বিপর্যয়গুলো ঘটেছে- তার পিছনে কোন না কোন পারমার্থিক কারন বিদ‍্যমান ছিল এবং থাকে। এই সৃষ্টিজগতের স্রষ্টা নিশ্চয়ই চান না- উনার নির্ধারিত সময়ের আগেই পৃথিবী ধ্বংস হয়ে যাক। আর তাইতো- মানুষ যখন ধ্বংসের উন্মত্ততায় মত্ত হয়ে যায়, কালের বিনাশে মরিয়া হয়ে উঠে, ধর্মের নামে অধর্মের কাজে লিপ্ত হয়, সৃষ্টির সেরা জীব মানুষ যখন অমানুষে পরিনত হয়, বিবেক বুদ্ধি লোপ পেয়ে যায়, ক্ষমতার দম্ভে- খ্যাতির দম্ভে- বিত্তের দম্ভে অন্ধ হয়ে যায়, মানবিকতা মাথা কুটে মরে পাষাণ হৃদয়ে, মানুষ ও প্রকৃতির প্রতি ভালোবাসা যখন অবহেলায় ধুলায় গড়াগড়ি খায়, মানুষ ভুলে যায় বিধাতার অবদান- তখন সৃষ্টিকর্তা ক্ষুব্ধ হয়ে যান- প্রকৃতির ভারসাম‍্য বজায় রাখতে, পৃথিবীকে নতুন রূপে সাজাতে ঝড়-ঝঞ্ঝা, টর্নেডো, সুনামি, ভূমিকম্প, অগ্নুৎপাত , দাবানল, বন‍্যা, খরা, মহামারী, অনাবৃষ্টি, অতিবৃষ্টি, অভাব ও অনটনের মাধ‍্যমে বুঝিয়ে দেন; যে, অহংকার করবার মালিক একমাত্র তিনিই- থামিয়ে দেন মানুষের বাড়াবাড়ি- তখন মানুষের পৃথিবীতে দেখা দেয় হাহাকার আর আহাজারি। মানুষ তখন কেবল তাকিয়ে থাকে আকাশের দিকে, করজোড়ে।

আবার এটাও তিনি শিক্ষা দিতে ভুলেন না- কোন কষ্টই চিরস্থায়ী নয়। ধৈর্য্য ধারন করতে বলেছেন, বলেছেন- রাতের আঁধার পেরিয়ে সকাল আসবে অবশ্যই। মানব সভ‍্যতার ইতিহাসে এমন সকাল সৃষ্টিকর্তা মানুষকে উপহার দিয়েছেন অগনিত বার- আবারও দিবেন নিশ্চয়ই, ইনশাআল্লাহ। তাহলে এবারের কেন এই করোনায় মানুষ এত আতংকিত ? এবার কেন পৃথিবীর ছোটবড় সবদেশের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে শুরু করে সবচেয়ে দরিদ্র মানুষদের দিন কাটছে উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠায় ? আবার ফিরে যেতে পারবে কিনা জীবনের উৎসবে- রাত পার হচ্ছে এই আশংকায় ?

কোথায় এখন সেইসব ক্ষেপণাস্ত্র, মারণাস্ত্র বা মিসাইল- যা দিয়ে করোনা প্রতিহত করা যাবে ? মানুষ বারবার ভুলে যায় আল্লাহ তালাহর ক্ষমাকে। তাই এবার তিনি বুঝিয়ে দিচ্ছেন- বড় কোনো শক্তির কাছে নয়- অতি ক্ষুদ্র এবং অদেখা এক আণুবীক্ষণিক ভাইরাসের দাপটে পুরো দুনিয়ায় ভয়াবহ অচলাবস্থায় তৈরি হতে পারে ! অতএব, আমরা যেন সরে আসি আমাদের সকল প্রকার দাম্ভিকতা থেকে- আমাদের অক্ষমতা থেকে- আমাদের লোভ, লালসা থেকে- পৃথিবীকে বিনষ্ট করার পাঁয়তারা থেকে।

আরেকটা বিষয় লক্ষনীয়, এর আগেও বিভিন্ন পরিস্থিতিতে মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সেই মৃতদেহের যথানিয়মে দাফন এবং সৎকার হয়েছে- কিন্তূ এবারের মৃত্যুর মিছিলে- স্বজন দেখছেনা স্বজনের মুখ- করোনা এমনই এক অসুখ !!

তার মানে মানুষ বুঝে গেছে তার মৃত্যু হলেও চিত্রটা এমনই হবে- তারমানে মানুষ নিজেকে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসে। আরে ভালোবাসে বলেই নিজেকে রক্ষার জন‍্য কিনা করছে- মাস্ক, গ্লাভস আর ঘরে থেকেও ঘনঘন সাবান দিয়ে হাত ধুচ্ছে, প্রতিক্ষনে নিজেকে স‍্যানিটাইজ করছে, বাঁচার জন‍্য।

তো এতোই যখন ভালোবাসেন- তো আসুন, বাহ‍্যিক স‍্যানিটাজেশনের সাথে সাথে ভেতরের কলুষিত হৃদয়ের ও স‍্যানিটাইজ করি- উপলব্ধি করি মানুষ ও প্রকৃতির বিপক্ষে যায় এমন কর্ম তৎপরতা থেকে বিরত থাকি…

আসুন, নদীর কাছে যাই- সাঁতার কাটি বোধের নদীতে- ফিরিয়ে দেই নদীর নাব‍্যতা, পাহাড়ের কাছে যাই- ঝেরে ফেলি মনের ক্ষুদ্রতা, পশু-পাখী, জীব-জন্তুর কাছে ফিরিয়ে দেই অরন‍্যের দিনরাত্রি, আর সুনীল আকাশকে ফিরিয়ে দেই নির্মল বাতাস- এরাই আমাদের দিবে বেঁচে থাকার নির্ভেজাল অক্সিজেন- যা আমরা মজুদ করিনা। আসুন হয়ে উঠি- সেরা জীব ! আশরাফুল মাখলুকাত !!!
হে আল্লাহ মহামারি করোনা থেকে আমাদের মুক্তি না দিলে, রহমত না করলে আমরা কার কাছে যাবো। এই দুনিয়ায় ভিক্ষুক এক দরজায় ভিক্ষা না পেলে অন্য দরজায় যায়, আমরা বান্দারা তোমার দরজা ছাড়া কার দরজায় যাবো। হে মালিক প্রবাসের এবং দেশের সকলের একটাই দোয়া তুমি আমাদের তোমার প্রিয় হাবীব হযরত মুহাম্মদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর মোহাব্বত এর খাতিরে উনার উম্মত হিসাবে ক্ষমা করে রহমত দান করুন। পবিত্র মাহে রামাদানের উছিলায় আমাদের মাফ করে দিন -আমিন

লেখক পরিচিতি –
প্রবাসী সাংবাদিক, নাট্যকার, লেখক, কবি,প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি – রিয়াদ বাংলাদেশ থিয়েটার- ও শাহরাস্তি অপরূপা নাট্যগোষ্ঠী, চাঁদপুর।
আজীবন সদস্য চাঁদপুর জেলা প্রেসক্লাব।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page